× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

প্রতিদিনের বাংলাদেশ-এ সংবাদ প্রকাশ

তদন্ত করতে আদালতের স্বপ্রণোদিত আদেশ

কক্সবাজার প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০২৪ ২০:০৪ পিএম

আপডেট : ১৫ মার্চ ২০২৪ ২০:৫২ পিএম

প্যারাবনের কয়েক একর জায়গা জবরদখল করে চলছে ধ্বংসযজ্ঞ। বনের বাইন, কেওড়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির ছোট বড় হাজারো গাছ কেটে নির্মিত হচ্ছে নানা স্থাপনা, তৈরি হয়েছে বাঁশের ঘেরাও। প্রবা ফাইল ফটো

প্যারাবনের কয়েক একর জায়গা জবরদখল করে চলছে ধ্বংসযজ্ঞ। বনের বাইন, কেওড়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির ছোট বড় হাজারো গাছ কেটে নির্মিত হচ্ছে নানা স্থাপনা, তৈরি হয়েছে বাঁশের ঘেরাও। প্রবা ফাইল ফটো

কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কের রামু উপজেলার খুনিয়াপালংয়ের পেঁচারদ্বীপে প্যারাবন ও ভরাট খাল দখল করে রিসোর্ট নির্মাণের অভিযোগ তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

দৈনিক প্রতিদিনের বাংলাদেশ-এ ৯ মার্চ ‘পেঁচারদ্বীপে খাল-প্যারাবন দখল করে রিসোর্ট শিরোনামে প্রকাশিত সচিত্র সংবাদের জের ধরে ১২ মার্চ কক্সবাজার পরিবেশ আদালতের স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট ও সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আসাদ উদ্দিন মো. আসিফ স্বপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দিয়েছেন।

আদেশে বলা হয়েছে, ‘পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদটি আদালতের গোচরীভূত হয়েছে। সমুদ্র ও সমুদ্রসংলগ্ন প্যারাবন পরিবেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বন/গাছপালা /পাহাড়/সমুদ্র ও সমুদ্রসংলগ্ন প্যারাবনের ভূমিকা অনস্বীকার্য। পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত হলে পরিবেশের এই বিরূপ আচরণ থেকে মানুষের নিষ্কৃতি পাওয়া অসম্ভব। তাই পরিবেশের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান সমুদ্র ও সমুদ্রসংলগ্ন প্যারাবন কর্তন ও জবরদখল রোধকল্পে প্রত্যেকের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা অপরিহার্য।’

এতে আরও বলা হয়, ‘সমুদ্রসংলগ্ন প্যারবন দখলপূর্বক উল্লিখিত অপরাধ সংঘটনকারী ব্যক্তি/গণ/গোষ্ঠী সরকারি/ব্যক্তি মালিকানাধীন অথবা কোনো জায়গায় কী রূপ অপরাধ করেছে/করছে এবং (যদি) এ রূপ অপরাধ সংঘটন সাপেক্ষে পরিবেশ অধিদপ্তর কর্তৃক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে কি-না তদন্ত করা একান্ত আবশ্যক। ফৌজদারি কার্যবিধি, ১৮৯৮-এর ১৯০ (১) (গ) মতে আদালত উক্ত ঘটনা স্বপ্রণোদিত হয়ে আমলে নেওয়ার এখতিয়ার রাখেন।’

‘এমতাবস্থায় উক্ত বিষয়ে সহকারী পরিচালক পদমর্যাদার নিম্নে নয় এমন কর্মকর্তা কর্তৃক ঘটনাস্থল পরিদর্শনপূর্বক ঘটনা সংঘটন সাপেক্ষে ঘটনার বিষয়ে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, তৎবিষয়ে আগামী ২ এপ্রিল সশরীরে হাজির হয়ে স্থিরচিত্রসহ প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পরিচালক, পরিবেশ অধিদপ্তর, কক্সবাজারকে নির্দেশ প্রদান করা হলো,’ বলা হয় আদেশে।

আদালতের আদেশ কপিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন কপি সংযুক্ত করে প্রকাশিত সংবাদের বিস্তারিত উপস্থাপন করা হয়েছে; যা ৯ মার্চ প্রতিদিনের বাংলাদেশ-এর প্রথম পৃষ্ঠায় প্রকাশিত হয়েছে।

প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়, কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কের রামু উপজেলার খুনিয়াপালংয়ের পেঁচারদ্বীপে প্যারাবন ও ভরাট খাল দখল করে রিসোর্ট নির্মাণ করছে মারমেইড কর্তৃপক্ষ। সাগর পাড়ের সরকারি ১ নম্বর খাস খতিয়ানের ৫০০ নম্বর দাগের বিশাল এলাকা দখল করে নানাভাবে স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। এক্সকাভেটর দিয়ে মাটি কেটে প্যারাবনের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করা হচ্ছে। নির্বিচারে কাটা হয়েছে প্যারাবনের বাইন, কেওড়াসহ বিভিন্ন প্রজাতির ছোট বড় হাজার হাজার গাছ। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হচ্ছে প্যারাবনের জীববৈচিত্র্যসহ পাখির আবাসস্থল। ইতোমধ্যে প্যারাবন দখল করে দেওয়া হয়েছে সীমানা পিলার ও ঘেরাও। নির্মাণ করা হয়েছে ৫০০ ফুটের বিশাল লম্বা কাঠের সাঁকো। এভাবে একরের পর একর প্যারাবন জবরদখল ও ধ্বংসযজ্ঞ চালানো হচ্ছে।

যদিও সংবাদ প্রকাশের পর ইতোমধ্যে রামু উপজেলা প্রশাসন দুই দফায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘেরাও-বেড়া উচ্ছেদ করে দখল বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা