× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

আট বছর পর কাউন্সিল নিয়ে ভাবনা বিএনপির

বাছির জামাল

প্রকাশ : ০৬ মার্চ ২০২৪ ০৯:৪৬ এএম

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়। ফাইল ফটো

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়। ফাইল ফটো

বিএনপিকে সাংগঠনিকভাবে গুছিয়ে নিতে এবং নতুনভাবে বিন্যস্ত করতে এবার জাতীয় কাউন্সিল করার চিন্তা করছেন দলটির নীতিনির্ধারকরা। ২০১৬ সালের পর থেকে দীর্ঘ প্রায় আট বছর ধরে দলটির কাউন্সিল হচ্ছে না। মেয়াদোত্তীর্ণ এই কমিটি নিয়ে বিএনপিতে রয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। তবে গত সোমবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকে জাতীয় কাউন্সিল নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। বৈঠকে অনেকেই কাউন্সিল করার পক্ষে অভিমত দিয়েছেন। নীতিনির্ধারকদের আগামী বৈঠকে কাউন্সিলের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে।

বিএনপির সর্বশেষ ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল হয় ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ। অথচ দলটির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন বছর পরপর সম্মেলন (কাউন্সিল) হওয়ার কথা। অন্যদিকে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুসারেও নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর তিন বছর পরপর কাউন্সিল করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই কাউন্সিল না হওয়ায় একদিকে দলীয় গঠনতন্ত্র এবং অন্যদিকে ইসির আরপিও দুটোই উপেক্ষিত ও লঙ্ঘিত হচ্ছে বলে মনে করছেন দলটির অনেক নেতা ও সংগঠক। আরপিও লঙ্ঘন করায় বিএনপি নিবন্ধনঝুঁকিতে রয়েছে বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

তবে নির্ধারিত সময়ে কাউন্সিল করতে না পারার জন্য সরকারের দমন-পীড়ন ও সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে দায়ী করছে বিএনপি। বিএনপির ষষ্ঠ কাউন্সিলের প্রায় পাঁচ মাস পর ২০১৬ সালের ৬ আগস্ট স্থায়ী কমিটির ১৭ সদস্যসহ ৫০২ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়। পাশাপাশি ঘোষণা করা হয় চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের ৭৩ সদস্যের নাম। তবে গত আট বছরে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের অনেক নেতার মৃত্যু ঘটেছে। কেউ কেউ পদ-পদবি থেকে বাদ পড়েছেন। সব মিলিয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির ১৩০টির মতো পদ এখন শূন্য। বয়সজনিত কারণেও সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে নিষ্ক্রিয় রয়েছেন দলটির কোনো কোনো নেতা। বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটিতে বর্তমানে পদ রয়েছে ১৯টি। এর মধ্যেও পাঁচটি পদ খালি রয়েছে। 

বিএনপির নেতারা জানিয়েছেন, দলটির সংগঠন পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে গত শুক্রবার জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আংশিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর পরপরই অনুষ্ঠিত হয়েছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক।

এই বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, আলোচনার শেষ পর্যায়ে স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য জাতীয় কাউন্সিলের প্রসঙ্গ সামনে আনেন। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্যও এ বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন থাকায় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বৈঠকে নেই। আগামী বৈঠকে আমরা এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।’ এমন প্রেক্ষাপটে কাউন্সিলের বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কর্মসূচি 

বিএনপির এ বৈঠকে গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রমজান শুরুর আগেই এই বিক্ষোভ কর্মসূচি হতে পারে। যুগপৎ আন্দোলনের শরিকদের সঙ্গে আলোচনার পর যেকোনো সময় এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হতে পারে। তবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর যুগপৎ শরিকদের সঙ্গে এ নিয়ে এখনও কোনো আলোচনা হয়নি বলে জানা গেছে। সর্বশেষ গত ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশব্যাপী ৬ দিনের যুগপৎ কর্মসূচি পালন করে বিএনপি ও সমমনা দলগুলো।

প্রসঙ্গত, ভর্তুকি সমন্বয়ের অংশ হিসেবে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে সরকার। এর আগের দিন ২৮ ফেব্রুয়ারি বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়। এ ছাড়া গত ৩ মার্চ বাড়ানো হয়েছে এলপি গ্যাসের দাম।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, ‘দেশকে বাঁচাতে হলে সুষ্ঠু নির্বাচনের বিকল্প নেই। জনগণের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে থাকবে বিএনপি। খুব শিগগিরই বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।’

রমজানে তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত ইফতার মাহফিল  

এদিকে আন্দোলনের ব্যর্থতায় সারা দেশে ঝিমিয়ে পড়া সংগঠন ও নেতাকর্মীদের চাঙ্গা এবং উজ্জীবিত করতে আসন্ন রমজানে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত ইফতার মাহফিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। এ নিয়ে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়। 

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাংগঠনিক জেলাগুলোর ইফতারে ভার্চুয়ালি যুক্ত হবেন। দলের সাংগঠনিক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকরা জেলা নেতাদের সঙ্গে এ বিষয়টি সমন্বয় করছেন। কেন্দ্রীয়ভাবে এবার চারটি ইফতার মাহফিল করা হতে পারে। 

এরই মধ্যে আসন্ন রমজানে দুটি ইফতারের শিডিউল চূড়ান্ত করেছে বিএনপি। রমজানের প্রথম দিন এতিম ও আলেমদের সঙ্গে ইফতার করবেন বিএনপি নেতারা। এ ছাড়া ২৮ মার্চ রাজনৈতিক নেতাদের সম্মানে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা