× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

হলের কক্ষে ঢুকে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৪ আগস্ট ২০২৩ ১৯:২০ পিএম

আপডেট : ২৪ আগস্ট ২০২৩ ১৯:৪৫ পিএম

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে হলের কক্ষে ঢুকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২৩ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু হলের ৪১৭ নাম্বার কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থীর নাম তিলেশ্বর রায়। তিনি সঙ্গীত বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- সঙ্গীত বিভাগের আলামিন শাহ, সবুজ আহমেদ, সাইফ, রাহিদুল এবং রাহাত।

মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থী নিজ বিভাগের পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে বিভাগীয় প্রধান বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তিলেশ্বর রায় জানান, সঙ্গীত বিভাগের জুনিয়র ব্যাচের শিক্ষার্থীদের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিভাগের সিনিয়র আলামিন শাহ ভাই ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। আমি সেখানে কমেন্ট করে বলি যে এটি যেহেতু বিভাগের অভ্যন্তরীণ বিষয় তাই বিভাগের গ্রুপে পোস্ট দিলে ভালো হত। এরপর তিনি আমাকে ফোন দিয়ে তার সঙ্গে দেখা করতে বলেন। পরদিন আমার পরীক্ষা থাকায় দেখা করতে দেরি হওয়ায় কয়েকজন মিলে আমার রুমে এসে সহপাঠীদের বের করে দিয়ে আমাকে মারধর করেন।

অভিযোগে তিলেশ্বর লেখেন, ‘গত ২৩ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু হলে আমার কক্ষে বিভাগের কয়েকজন অগ্রজ প্রবেশ করে জুনিয়রদের সামনে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও অতর্কিত হামলা করে। আমাকে অনেক মারধর করে এবং আমার ফোন কেড়ে নিয়ে অনেক ডকুমেন্টস মুছে দেয়।’

এর আগে আলামিনের মারধরের শিকার আরেক শিক্ষার্থী ভবেষ রায় বলেন, একদিন আমি রিকশা দিয়ে যাচ্ছিলাম। সেই সময় আল-আমিন ভাই আমাকে ডেকেছিল কিন্তু আমি তা শুনতে পাইনি। এই ভুলের জন্য তিনি আমাকে ডেকে নিয়ে মারধর করেন এবং ক্যাম্পাসে থাকতে দিবেন না এমন হুমকি দেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আল আমিন শাহ বলেন, ‘তিলেশ্বর আমার এলাকার ছোট ভাই। আমি তাকে একটু শাসন করেছি। এই ঘটনার জন্য আমি অনুতপ্ত। আমি আমার ভুল স্বীকার করছি।’

অভিযোগ উঠা অন্যদের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে সঙ্গীত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. জাহিদুল কবীর বলেন, ‘ঘটনাটি আমরা জানতে পেরেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় যারা নিয়োজিত আছেন তাদেরকে বিভাগ থেকে বিষয়টি অবহিত করা হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সঞ্জয় মুখার্জি জানান, ‘এ ব্যাপারে আমি এখনও লিখিতভাবে অবগত হইনি। আমাদের অবগত করা হলে আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা