× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নয়, শিশু মাইশার প্রাণ গেছে মায়ের হাতেই

চুয়াডাঙ্গা প্রতিবেদক

প্রকাশ : ০৬ মে ২০২৪ ১৬:১৯ পিএম

আপডেট : ০৬ মে ২০২৪ ১৬:৫৭ পিএম

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নয়, শিশু মাইশার প্রাণ গেছে মায়ের হাতেই

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ভোগাইল বগাদি গ্রামে নানা বাড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত হয়েছে— এমন তথ্য দিয়ে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি সকালে আট বছরের মাইশা খাতুনকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন মা পপি খাতুন। ঘণ্টাখানেক পর শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়।

নিহত মাইশা খাতুন কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানার ঝুটিয়াডাঙ্গা গ্রামের সাইফুল ইসলামের কন্যা।

সোমবার (৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান জানান, মামলার তদন্তে গিয়ে নানা ধরনের নেতিবাচক তথ্য পেয়ে শিশুটির দুর্ঘটনায় মৃত্যু নিয়ে সন্দেহের সৃষ্টি হয় তদন্ত কর্মকর্তার মনে। তিনি বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন।

শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে বিনা ময়নাতদন্তে লাশ দাফনের অনুমতি চেয়ে আবেদন করলেও শেষ পর্যন্ত পুলিশ সুপারের নির্দেশে শিশুটির মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককর্তৃক সুনির্দিষ্ট মতামতের জন্য ময়নাতদন্তের সিদ্ধান্ত হয়। পরে চিকিৎসক মতামত দেন মাইশাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

পরে শিশুটির নানা শহিদুল ইসলাম আলমডাঙ্গা থানায় গত শুক্রবার অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা করেন।

গতকাল রবিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে মা পপি খাতুনের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে পপি শিকার করেন, তিনি নিজেই তার মেয়েকে হত্যা করেছেন।

পুলিশ সুপার ফয়জুর রহমান বলেন, তদন্তে মাইশার মা পপি খাতুনের পূর্বের বৈবাহিক জীবন, বিবাহবিচ্ছেদ ও বিচ্ছেদপরবর্তী সময়ের নানা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে; যা এ হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে অনুঘটক হিসেবে কাজ করেছে বলে এখন পর্যন্ত ধারণা করছি। পপিকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতে তোলা হলে তিনি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, মামলার তদন্ত অব্যাহত আছে। যেহেতু এটি একটি স্পর্শকাতর খুনের ঘটনা চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ এটিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে। তদন্তে পাওয়া তথ্যাদি যাচাই-বাছাই শেষে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা