× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

নোয়াখালীতে স্ত্রী-কন্যা ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় গ্রেপ্তার সাবেক স্বামী

নোয়াখালী প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৪৮ পিএম

আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৫:৩৯ পিএম

বুধবার চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানা এলাকা থেকে আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রবা ফটো

বুধবার চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানা এলাকা থেকে আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রবা ফটো

নোয়াখালীতে স্ত্রী-কন্যা ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় সাবেক স্বামী আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) মোহাম্মদ ইব্রাহীম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে বুধবার রাতে চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানা এলাকার হোটেল আল-সিরাজের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছে থাকা ব্যাগের ভেতর থেকে ধারালো দা ও ছুরি উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার আমির হোসেন সোনাইমুড়ীর অম্বরনগর ইউনিয়নের অম্বরনগর গ্রামের বাসিন্দা। 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২২ বছর সংসার জীবনে পারিবারিক বিষয় নিয়ে আসামি আমির প্রায়ই ফাতেমাকে মারধর করত বলে অভিযোগ। প্রায় ৬/৭ বছর আগে ফাতেমা তার সন্তানদের নিয়ে সেনবাগ থানার অজুর্নতলা ইউনিয়নের ইদিলপুর গ্রামের বাবার বাড়ির পাশে বাড়ি করে বসবাস করছিলেন। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে আমির হোসেন তার ভাই বেলাল হোসেনকে নিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে ফাতেমা, তার মেয়ে রাহেলা আক্তার ও মা মাফিয়া বেগমকে কুপিয়ে জখম করে। আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করায়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয় তাদের। পরবর্তীতে ফাতেমার ভাই আমিরুল ইসলাম বাদী হয়ে হত্যাচেষ্টা মামলা করেন। পুলিশ মামলার দ্বিতীয় আসামি বেলাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করলেও প্রথম আসামি আমির পলাতক ছিলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) মোহাম্মদ ইব্রাহীম বলেন, আসামি আমিরকে ধরতে বিভিন্ন জেলায় অভিযান অব্যাহত ছিল। গতকাল তাকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে প্রাথমিকভাবে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তার কাছ থেকে ঘটনায় ব্যবহৃত দা, ছুরি জব্দ করা হয়েছে। আমিরের দ্বিতীয় স্ত্রীকে বিভিন্ন সময় প্রথম স্ত্রী কুবুদ্ধি ও কুপরামর্শ দেওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে। আমরা তাকে আদালতে সোপর্দ করব। আশাকরি খুব দ্রুত চার্জশিট দিতে পারব।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডিআইওয়ান মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাজিম উদ্দীন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা