× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

চট্টগ্রামের ১৬টি আসনে এমপি হওয়ার প্রত্যাশায় ২০৩ জন

সুবল বড়ুয়া, চট্টগ্রাম

প্রকাশ : ২১ নভেম্বর ২০২৩ ২০:৫৮ পিএম

আপডেট : ২১ নভেম্বর ২০২৩ ২১:২৭ পিএম

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

মহানগরীসহ চট্টগ্রামের ১৬টি আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ১৪ জন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অন্য দুই আসন ছেড়ে দেয়া হয়েছিলো শরীক দলের জন্য। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে নিজ নিজ এলাকায় ব্যানার, পোস্টার লাগানো, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালানোর পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও অংশ নিচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

চট্টগ্রামের ১৬ আসনের সংসদ সদস্যদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে প্রস্তুত দুই শতাধিক আওয়ামী লীগ নেতা। এতে মহানগরী, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ-সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি একাধিক উপজেলা চেয়ারম্যান ও চসিকের কাউন্সিলরও রয়েছেন। সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে সীতাকুণ্ড ও বাঁশখালী উপজেলার নির্বাচিত চেয়ারম্যানও পদত্যাগ করেছেন। 

গত শনিবার থেকে চারদিনব্যাপী আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমা শুরু হয়। এই চারদিনে চট্টগ্রামের ১৬ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্যসহ আরও ২০৩ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমাও দিয়েছেন। এরমধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরীর চারটি আসনে একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী দুই বা তিন আসনেও মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

মনোনয়নপত্র সংগ্রহ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটি চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্য সালাউদ্দিন সাকিব প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, গত চারদিনে চট্টগ্রামের ১৬টি আসনে ২০৩ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের একজন চট্টগ্রামের ১৪ দলের সমন্বয়ক ও চসিকের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। তিনি বলেন, আমি নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন চেয়েছিলাম। দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতি করছি। শেষ বয়সে একবার সংসদ সদস্য হতে চাই। ছয় মাসের জন্য চসিকের প্রশাসকের দায়িত্ব পেয়ে অনেক কাজ করেছি। আশা করি প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি বিবেচনায় আনবেন।

আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, তিন আসনে দলীয় মনোনয়নপত্র নিয়েছি। যোগ্যতা, দক্ষতা এবং জনসম্পৃক্ততা বিবেচনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে কোনো একটিতে মনোনয়ন দেবেন বলে আশাবাদী।

চট্টগ্রামের ১৬টি আসনের মধ্যে চট্টগ্রাম-০১ (মিরসরাই) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন মনোনয়নপত্র নেননি। তিনি তার ছেলে মাহবুব উর রহমান রোহেলের জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান মিরসরাইয়ের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন ও একেএম বেলায়েত হোসেনসহ আরও তিনজন।

চট্টগ্রাম-০২ (ফটিকছড়ি) আসনের বর্তমান সাংসদ বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের শরিক দল হিসেবে নির্বাচিত হন। এবার তিনি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি। এই আসনের সংরক্ষিত মহিলা আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য খাদিজাতুল আনোয়ার সনি, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, এম আর আজিমসহ আরো ১৯ জন দলীয় মনোনয়নপত্র নিয়েছেন। 

চট্টগ্রাম-০৩ (সন্দ্বীপ) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমান মিতা। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে সারওয়ার হাসান জামীলসহ আরো ১০ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-০৪ (সীতাকুণ্ড) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য দিদারুল আলম। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সদ্য পদত্যাগ করা সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আল মামুন, সীতাকুণ্ড উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল্লাহ আল বাকের ভুঁইয়া, চসিকের বর্তমান কাউন্সিলর ড. নিছার উদ্দীন আহমেদ মঞ্জুসহ আরো ১১ জন।

চট্টগ্রাম-০৫ (হাটহাজারী) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। তিনি এবার মনোনয়নপত্র নেননি। আসনটিতে নৌকার মাঝি হতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুস সালাম (এম এ সালাম), চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সভাপতি এবং বর্তমান হাটহাজারী উপজেলা চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম চৌধুরী চৌধুরী বাবুলসহ ৯ জন।

চট্টগ্রাম-০৬ (রাউজান) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী। তার পাশাপাশি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন মুসলিম উদ্দীন চৌধুরী, সাবেক পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিতসহ আরো ৭ জন। 

চট্টগ্রাম-০৭ (রাঙ্গুনীয়া) আসনে তথ্যমন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ড. হাছান মাহমুদ সঙ্গে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ওসমান গণি চৌধুরী।

চট্টগ্রাম-০৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য নোমান আল মাহমুদ। গত চার মাস আগে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার পাশাপাশি এই আসনে ২৫ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এরমধ্যে সাবেক এমপি মঈনুদ্দীন খান বাদল এমপির সহধর্মিনী সেলিনা খান, সাবেক সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, মুজিবুর রহমানসহ আরো অনেকে রয়েছেন। 

চট্টগ্রাম-০৯ (কোতোয়ালী-বাকলিয়া) আসনে শিক্ষা উপমন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এই আসনে এবার চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম চৌধুরী চৌধুরী বাবুল, সিডিএ চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষসহ মোট ১৭ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১০ (হালিশহর-ডবলমুরিং) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মহিউদ্দিন বাচ্চু। তিনি মাস খানেক আগে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এই আসনেও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম ১৪ দলের সমন্বয়ক ও চসিকের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, এই আসনের সাবেক এমপি ডা. আফছারুল আমিনের ভাই এরশাদুল আমিন, কাউন্সিলর আব্দুস সবুর লিটনসহ ১৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফ। তার পাশাপাশি আ জ ম নাছির উদ্দিন, খোরশেদ আলম সুজন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, রোটারিয়ান ইলিয়াছ, চসিকের বর্তমান কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমনসহ সর্বোচ্চ ২৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের এমপি চেমন আরা বেগম, মুহাম্মদ বদিউল আলমসহ আরো ১৫ জন দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদসহ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজাদা মহিউদ্দিন ও সমীরন নাথ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। 

চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী। তার সঙ্গে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুর রহমান, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরীসহ আরো ১২ জন।

চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী। আলোচিত এই এমপির সঙ্গে নির্বাচনে অংশ নিতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব, মঈনুদ্দিন হাসান চৌধুরী, আ ম ম মিনহাজুর রহমানসহ ১৩ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুজিবুর রহমান সিআইপি, আবদুল্লাহ কবির লিটন, সদ্য পদত্যাগ করা বাঁশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব সাদলীসহ আরো ১২ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। 

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা