× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

অভয়নগরে মাইকে ঘোষণা দিয়ে গ্রামবাসীর হামলা, নিহত ১

অভয়নগর (যশোর) প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৪ আগস্ট ২০২৩ ১৯:১১ পিএম

আপডেট : ২৪ আগস্ট ২০২৩ ১৯:৫১ পিএম

প্রবা ফটো

প্রবা ফটো

যশোরের অভয়নগরে ডাকাতির অভিযোগে মাইকে ঘোষণা দিয়ে মাসুদ রানা নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। এ সময় তাদের পিটুনিতে আহত হয়েছেন আরও পাঁচ যুবক। বুধবার (২৩ আগস্ট) দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের বনগ্রাম কাটাখালী মোড় থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে একই এলাকার একটি বাড়িতে হামলা চালিয়ে ওই ছয় যুবককে মারধর করা হয়।

নিহত মাসুদ রানা যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়া ইউনিয়নের গাইদগাছী গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী ছয়রুদ্দিন ওরফে সোহরাব হোসেনের ছেলে। তারা ব্যবসার কারণে বসুন্দিয়ায় বসবাস করতেন। পূর্ব শত্রুতার জেরে এই হামলা করা হয়েছে বলে দাবি হতাহতদের স্বজনদের।

পিটুনিতে আহতরা হলেন গাইদগাছী গ্রামের ইসমাইল আলীর ছেলে জুলফিকার আলী (৩০), মনিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের সুবলকাঠি গ্রামের মুনসুর আলী বিশ্বাসের ছেলে ইস্রাফিল হোসেন (২০), একই গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে সুমন হোসেন (১৯), বারপাড়া গ্রামের বাবুল গাজীর ছেলে মঈন উদ্দিন (২১) ও একই উপজেলার কররা গ্রামের সজিব হোসেন (২২)।

নিহত মাসুদের চাচাতো ভাই জিয়াউর রহমান জানান, আমার ভাই কাঠের ব্যবসা করত। সে ছিল একজন মাদকাসক্ত। মাঝে মাঝে সে গাইদগাছী গ্রামের জুলফিকারের বাড়িতে গিয়ে মাদক সেবন করত। ঘটনার দিন রাতে সে জুলফিকারের বাড়িতে পাঁচ বন্ধুকে নিয়ে মাদক সেবন করছিল। গভীর রাতে স্থানীয় কয়েকজন অজ্ঞাতনামা যুবক দেশীয় অস্ত্রসহকারে জুলফিকারের বাড়ি হামলা চালিয়ে ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করে আমার ভাইসহ ঘরের মধ্যে থাকা সকলকে টেনে বের করে এনে পেটাতে শুরু করে। পরে অস্ত্রধারীরা আহত ছয়জনকে বনগ্রাম কাটাখালি তিন রাস্তার মোড়ে ফেলে রাখে। ওরা আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। আমি ওদের বিচার দাবি করি।

অভয়নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বিমান তরফদার বলেন, খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহত ছয়জনকে উদ্ধার করে অভয়নগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুদ রানাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত অপর পাঁচজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে যশোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

প্রেমবাগ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান বলেন, আমি সকালে খবর শুনে ওই গ্রামে যাই। সেখানে আহত জুলফিকারের স্ত্রী আমাকে জানান, এলাকার একটি সমস্যার কারণে তার স্বামী কয়েকদিন বাড়িতে ছিলেন না। কাল রাতে তিনি বাড়ি ফিরেছেন। ওই সময় তার সঙ্গে আরও কয়েকজন ছিলেন। গ্রামে ডাকাত পড়েছে, এই কথাটা মাইকে ঘোষণা দিয়ে গ্রামের লোকজন বাড়িতে হানা দিয়ে তাদের মারধর করে। পরে জানতে পারি, গণপিটুনিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে কী কারণে এই হামলা হয়েছে তা জানাতে পারেননি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান।

যশোর কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম জানান, একদল যুবক বুধবার গভীর রাতে সদর উপজেলার বসুন্দিয়া ইউনিয়নের গাইদগাছী গ্রামের একটি বাড়িতে বসে নেশা করছিল। এ সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আরেক দল তাদের ওপর হামলা চালায়। মারধরের একপর্যায়ে মাসুদ রানা নামে একজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহত হন আরও পাঁচজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি যশোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় যশোর কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা