× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

সংবাদকর্মীকে পুলিশের হেনস্থা

ব্যবস্থা নিতে আইজিপিকে চিঠি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের

চুয়াডাঙ্গা প্রতিবেদক

প্রকাশ : ০৭ জুন ২০২৪ ১৯:০৮ পিএম

আপডেট : ০৭ জুন ২০২৪ ১৯:৫০ পিএম

২ জুন রাতে চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের হাতে হেনস্থার শিকার হন দুই সাংবাদিক। প্রবা ফটো

২ জুন রাতে চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের হাতে হেনস্থার শিকার হন দুই সাংবাদিক। প্রবা ফটো

চুয়াডাঙ্গায় দুই সংবাদকর্মীকে হেনস্থার ঘটনায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশন স্বতঃপ্রণোদিত অভিযোগ (সুয়োমটো) গ্রহণ করেছে।

ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যদের চিহ্নিত করে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য বুধবার (৫ জুন) বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শককে চিঠি দিয়েছেন কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ।

সাংবাদিক হেনস্থার এ ঘটনাকে অত্যন্ত অনভিপ্রেত উল্লেখ করে ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্যও বলেছেন তিনি।

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘চুয়াডাঙ্গায় দুজন সাংবাদিককে হেনস্থার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে’ শীর্ষক সংবাদটি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের নজরে এসেছে। এ বিষয়ে কমিশন স্বপ্রণোদিত অভিযোগ (সুয়োমটো) গ্রহণ করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রাষ্ট্রের পেশাদার শৃঙ্খলা বাহিনী বাংলাদেশ পুলিশের কতিপয় সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিককে মারধর ও হেনস্থাবিষয়ক অভিযোগটি অত্যন্ত অনভিপ্রেত। পুলিশ বাহিনীর কতিপয় সদস্যের এমন কর্মকাণ্ডে দেশে-বিদেশে পুরো বাহিনী প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। উক্ত ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যদের চিহ্নিত করে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা সমীচীন মর্মে কমিশন মনে করে। এ অবস্থায় চুয়াডাঙ্গায় সাংবাদিককে মারধর ও হেনস্থা করার ঘটনাটি সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক দায়ী পুলিশ সদস্যদের চিহ্নিতকরণ এবং বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করে ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে কমিশনে প্রতিবেদন প্রেরণ করতে পুলিশ মহাপরিদর্শককে বলা হয়েছে। আদেশের অনুলিপি সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

রবিবার (২ জুন) রাত আনুমানিক ৯টার দিকে পারিবারিক বিবাদের অভিযোগ মীমাংসা করতে গিয়ে উল্টো সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ ওঠে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা-পুলিশের উপপরিদর্শক মামুন ও সহকারী উপপরিদর্শক নাসরিনের বিরুদ্ধে। এ সময় বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল ডিবিসি টেলিভিশনের ক্যামেরা পারসন শিমুল হোসেনকে মারধর, ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের পর পুলিশের পিকআপ ভ্যানে তোলা, অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং ডিবিসির চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি কামরুজ্জামান সেলিমকে হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে।

এ ঘটনায় ৩ জুন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটির একমাত্র সদস্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) নাজিম উদ্দীন আল আজাদ (পিপিএম-সেবা) তদন্তকাজ শুরু করেন।

চিত্রসাংবাদিক শিমুল জানান, শুরু থেকেই অশালীন ব্যবহারে মারমুখী আচরণ করেন পুলিশ সদস্যরা। সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে আরও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। গালিগালাজের সঙ্গে পিকআপ ভ্যানে তুলে থানায় নিয়ে গিয়ে দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন তারা। স্থানীয় লোকজনও এর প্রতিবাদ করে।

ডিবিসি নিউজের প্রতিনিধি কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘প্রথমে পুলিশ সদস্যদের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের কথা থানার ওসিকে জানানো হলে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে পুলিশ সদস্যরা। আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছলে আমাকেও হেনস্থা করা হয়। কেড়ে নেয় ব্যবহৃত মোবাইল ফোন।’

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) নাজিম উদ্দীন আল আজাদ জানান, বিষয়টি দুঃখজনক। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এজন্য সাংবাদিকদের কাছে সময়ও চান তিনি।

এদিকে এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চুয়াডাঙ্গায় কর্মরত সাংবাদিকরা। সাংবাদিকরা আলোচনায় বসে পুলিশের এমন আচরণের নিন্দা জ্ঞাপন করেন। এ ঘটনার সৃুষ্ঠ তদন্ত করে বিচার দাবী করেছেন চুয়াডাঙ্গার গণমাধ্যমকর্মীরা।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা