× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ

আনারের আসনে দখল নিতে তৎপর অনেকেই

মো. হাবিব ওসমান, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)

প্রকাশ : ০৩ জুন ২০২৪ ১০:১৭ এএম

আপডেট : ০৩ জুন ২০২৪ ১১:৪৩ এএম

 আনোয়ারুল আজিম আনার। ছবি : সংগৃহীত

আনোয়ারুল আজিম আনার। ছবি : সংগৃহীত

সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের অবর্তমানে কে হবেন কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, উপনির্বাচনে কারা কারা প্রার্থী হবেন- এসব নিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মী থেকে সাধারণ মানুষের মধ্যে চলছে নানান জল্পনা-কল্পনা। পদপ্রত্যাশীরা প্রকাশ্যে কথা না বললেও ভেতরে ভেতরে তৎপর হয়ে উঠেছেন বলে খবর আসছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করে ফরম সংগ্রহ করেছিলেন, কিন্তু দলীয় প্রতীক পাননি, তাদের মধ্যে অনেকেই উপনির্বাচনে দলের মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছেন। 
সদ্য বিদায়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাহাঙ্গীর সিদ্দিক ঠান্ডু বলেন, ‘এমপি আনারের হত্যাকাণ্ড পৃথিবীর ইতিহাসের সবচেয়ে জঘন্য ও নৃশংসতম। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড রাজনীতিবিদদের জন্য অশনিসংকেত। এমপি আনার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। বর্তমানে কালীগঞ্জ তথা ঝিনাইদহ-৪ আসনের মানুষ শোকে মুহ্যমান। আমার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহযোদ্ধা এবং ছোট ভাই ছিলেন সংসদ সদস্য আনার। তার অবর্তমানে তার পরিবার থেকে কেউ যদি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না চান, তাহলে আমি ঝিনাইদহ-৪ আসনে সংসদ সদস্য পদের জন্য মনোনয়ন চাইব। সংকটকালীন এই সময়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গত দুইবারের ন্যায় আমার ওপর আস্থা রাখবে বলে বিশ্বাস করি।’
একই সঙ্গে ঠান্ডু আশাবাদ ব্যক্ত করেন, ‘কালীগঞ্জে উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে একসঙ্গে কাজ করার আশা রাখি। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি মনোনয়ন চাইনি। কারণ আনার মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। আমি তাকে অনেক ভালোবাসি। আমি সব সময় তার পরিবারের পাশে থাকব।’
আনারের আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আয়ূব হোসেন খান। তিনি বলেন, ‘আমি এমপি আনারের ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহযোদ্ধা। আমি আনারকে অনেক ভালোবাসি। আনার যখন রাজনৈতিকভাবে দেওয়া অনেকগুলো মিথ্যা মামলায় ভারতে আত্মগোপন করেছিলেন তখন আমি একটি সম্মেলনে তাকে সাধারণ সম্পাদক করার প্রস্তাব দিয়েছিলাম। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ একটি বড় রাজনৈতিক দল। বড় দলে মতভেদ থাকতেই পারে। গত নির্বাচনে আমিও মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলাম। মনোনয়নবঞ্চিত হয়ে আমি আনারের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কালীগঞ্জ উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আব্দুর রশিদ খোকনের ট্রাক মার্কার পক্ষে কাজ করেছি। তাই বলে আনারের কোনো ক্ষতি হোক এটা আমি চাইনি। এখন উপনির্বাচনে আমি অবশ্যই মনোনয়ন চাইব। আশা করি এবার নেত্রী আমাকে মনোনয়ন দেবেন।’
এমপি আনারের অবর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কে হতে পারেন, এমন কথার জবাবে আয়ূব খান বলেন, ‘গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ১নং সহসভাপতি সভাপতি হবেন। তবে কেন্দ্র যদি মনে করে তাহলে পরিবর্তন করতে পারে।’ 
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি আনারের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম আব্দুল মান্নানের ছোট ভাই উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আব্দুর রশিদ খোকন। খোকন বলেন, ‘আমি এমপি আনার ভাইয়ের মৃত্যুতে গভীরভাবে শোক প্রকাশ করছি। আমি তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও তার সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক ছিল। আনার ভাই আমার বড় ভাই সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের হাত ধরেই রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। তখন থেকেই আমাদের পরিবারের সঙ্গে আনার ভাইয়ের গভীর সম্পর্ক। আমি কখনও ভাবিনি আনার ভাই এভাবে নৃশংসভাবে খুন হবেন। তিনি অনেক পরিশ্রমী রাজনৈতিক নেতা। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-৪ আসনে অনেকেই দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। তার মধ্যে দল এমপি আনার ভাইকে তৃতীয়বারের জন্য মনোনয়ন দেয়। এরপর দল থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়, কেউ যদি স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে চায় তাহলে হতে পারে। এজন্য বাকি সবাই মনোনয়ন প্রত্যাহার করলেও আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছিলাম। গত নির্বাচনে আনার ভাই পেয়েছিলেন ৯৫ হাজার ৯০৭ ভোট। আর আমি তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী (ট্রাক প্রতীক) হিসেবে পেয়েছিলাম ৫৭ হাজার ১৯৪ ভোট। উপনির্বাচন হলে আমি দলীয় মনোনয়ন চাইব। আশা করি নেত্রী আমাকে নৌকা প্রতীক দেবেন। তবে এবার দলীয় প্রতীকের বাইরে নির্বাচন করার ইচ্ছা নেই। নেত্রী নৌকা প্রতীক যাকে দেবেন আমি তার পক্ষেই কাজ করব।’
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কে হবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমার ভাই সাবেক এমপি আব্দুল মান্নানের সহধর্মিণী আমার ভাবি শামিম আরা মান্নান। মনে করি দল তাকেই সভাপতির দায়িত্ব দেবে।’

প্রতিবাদ সমাবেশ
প্রায় প্রতিদিনই অব্যাহতভাবে চলছে এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যার প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে নানা কর্মসূচি। গতকাল রবিবার দুপুর ১২টায় কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে ভূষণ স্কুল সড়কে মানববন্ধন করেছে আওয়ামী লীগ। পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর সিদ্দিক ঠান্ডু। মানববন্ধনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের সব সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের সহস্রাধিক জনতা বিভিন্ন দাবি-সংবলিত প্ল্যাকার্ড-ব্যানার নিয়ে অংশ নেন।
শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা