× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

উপজেলা নির্বাচন

শিক্ষায় এগিয়ে দেলোয়ার ইকবাল কোটিপতি

মেরিনা লাভলী, রংপুর

প্রকাশ : ২৮ মে ২০২৪ ১৫:১৭ পিএম

শিক্ষায় এগিয়ে দেলোয়ার ইকবাল কোটিপতি

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে। প্রার্থীদের নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। এ নির্বাচনে রংপুর সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে হরিদেবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন (আনারস), চন্দনপাট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আমিনুর রহমান (ঘোড়া), মহানগর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ডা. দেলোয়ার হোসেন (হেলিকপ্টার) এবং জাতীয় পার্টির নেতা, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদ নবী মুন্না (লাঙল) আলোচনার শীর্ষে রয়েছে।

হলফনামা সূত্রে জানা যায়, ইকবাল হোসেন সদর উপজেলার পাগলাপীর রতিরামপুর গ্রামের বদিউজ্জামানের ছেলে। তিনি এইচএসসি পাস। তার মিথিলা টোব্যাকো নামে তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবসা রয়েছে। বার্ষিক কৃষি খাতে তিনি ১ লাখ ১০ হাজার টাকা, বাড়ি ও দোকান ভাড়া থেকে তার নির্ভরশীলরা ৪ লাখ ৫২ হাজার ৭৫০ টাকা আয় করেন। ইকবাল হোসেন ব্যবসা থেকে ১২ লাখ টাকা, শেয়ার, সঞ্চয়পত্র ও ব্যাংক আমনত থেকে ৩৪ লাখ ২৮ হাজার ৭৫৯ টাকা, চেয়ারম্যান হিসেবে প্রাপ্ত ভাতা ১ লাখ ২০ হাজার টাকা আয় করেন। তার অস্থাবর সম্পদের মধ্যে নগদ টাকা নিজ নামে ২৯ লাখ ৩৬ হাজার ৪৭৫ এবং স্ত্রীর নামে ১৫ লাখ ৮০ হাজার ৬১৯, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত নিজ নামে ৪৪ লাখ ৫৬ হাজার ৬০৪ এবং স্ত্রীর নামে ২১ লাখ ৯০ হাজার ৮৭১ টাকা রয়েছে। পোস্টাল ও সেভিংস বা স্থায়ী আমানতে তার বিনিয়োগ ৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা। ইকবাল হোসেনের ৬ লাখ টাকা মূল্যের একটি মাইক্রোবাস রয়েছে। তার নামে ১৭ ভরি এবং স্ত্রীর নামে ২২ ভরি স্বর্ণ রয়েছে। ইকবাল হোসেনের স্থাবর সম্পদের মধ্যে নিজ নামে ১৫ লাখ ৭ হাজার টাকা মূল্যের ২ দশমিক ৯১০ একর কৃষিজমি, ৭৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা মূল্যের দশমিক ১১৫ একর অকৃষি জমি রয়েছে। তার স্ত্রীর নামে ১৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা মূল্যের দশমিক ০৪০ একরের অকৃষি জমি এবং দানসূত্রে প্রাপ্ত ১ কোটি ১৬ লাখ ৬৩ হাজার ২৬৪ টাকা মূল্যের একটি বাড়ি রয়েছে। তার নামে কোনো দায়দেনা নেই। 

সদ্যপুস্করনী ইউনিয়নের পালিচড়া কাটাবাড়ী এলাকার কাজেম উদ্দিন মণ্ডলের ছেলে মাসুদ নবী মুন্না। তিনি এইচএসসি পাস। পেশায় তিনি একজন ঠিকাদার। তার নামে কোনো মামলা নেই। তিনি বার্ষিক ব্যবসা থেকে আয় করেন ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। অস্থাবর সম্পদের মধ্যে মুন্নার নিজ নামে নগদ টাকা ২ লাখ, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত ২ হাজার টাকা রয়েছে। তার স্ত্রীর নামে ৫ ভরি স্বর্ণ রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে কৃষিজমি নিজ নামে পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত দশমিক ০২২৫ শতক, অকৃষি ৩ শতক জমি রয়েছে। তার নামে কোনো দায়দেনা নেই। 

হরিদেবপুর ইউনিয়নের মোবারক হোসেনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন। তিনি এমবিবিএস পাস। তার নামে বর্তমানে কোনো মামলা নেই। তিনি অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা। তিনি বার্ষিক কৃষি খাতে ১ লাখ টাকা আয় করেন। তার অস্থাবর সম্পদের মধ্যে নিজ নামে নগদ টাকা ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ৯০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোটরসাইকেল রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে দেলোয়ার হোসেনের নিজ নামে ২০ বিঘা কৃষিজমি, ৬ লাখ টাকা মূল্যের অকৃষি জমি এবং ২টি টিনশেড বাড়ি রয়েছে। তার কোনো ঋণ নেই। 

সদর উপজেলার শ্যামপুরের মতিয়ার রহমানের ছেলে আমিনুর রহমান। তিনি এইচএসসি পাস। তার নামে কোনো মামলা নেই। তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। আমিনুর রহমান বার্ষিক কৃষি খাতে ১ লাখ, বাড়ি বা দোকান ভাড়া থেকে ৭২ হাজার, ব্যবসা থেকে ১ লাখ ৮ হাজার এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে সম্মানী ভাতা ১ লাখ ২০ হাজার টাকা পান। তার অস্থাবর সম্পদের মধ্যে নিজ নামে নগদ ৩ লাখ এবং ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের একটি প্রাইভেট কার রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে আমিনুর রহমানের নিজ নামে ১২০ শতক কৃষিজমি, দেড় লাখ টাকা মূল্যের পুকুর, ডোবা এবং ২ লাখ টাকা মূল্যের দালান রয়েছে। তার কোনো দায়দেনা নেই।


শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা