× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

আক্কেলপুরে স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

জয়পুরহাট প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৭ মে ২০২৪ ২২:৪৫ পিএম

আক্কেলপুরে স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আরও একজন আহত হয়েছেন। সোমবার (২৭ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার হলহলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দুজন হলেন- মৌ আক্তার ও তার খালা আলেয়া বেগম। মৌ ওই এলাকার রুবেল হোসেনের স্ত্রী এবং আলেয়া বেগম মো. সোলায়মানের স্ত্রী। এ ছাড়া ছুরিকাঘাতে আহত নীরব হোসেন আলেয়া বেগমের ছেলে। তাকে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুক্ত রুবেল হোসেন ঘটনার পরপরই বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন।

আক্কেলপুর থানার ওসি নয়ন হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, স্ত্রী ও খালা শাশুড়িকে ছুরিকাঘাতের পর রুবেল পালিয়ে যাওয়ার সময় নীরব তাকে ধরতে আসে। পরে তাকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। ঘটনার পরই রুবেল হোসেন পালিয়েছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে। লাশ দুটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে। পুলিশ লাশের সুরতহাল তৈরি করেছে।

পুলিশ, নিহতদের স্বজন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক যুগ আগে হলহলিয়া গ্রামের মৌ আক্তার মিতুর সঙ্গে নওগাঁর বদলগাছীর শ্রীরামপুর গ্রামের রুবেল হোসেনের বিয়ে হয়। তাদের এক কন্যাসন্তান রয়েছে। মৌ আক্তারের মা কমলা বেগম সৌদিপ্রবাসী। সে মৌ আক্তারকে হলহলিয়া গ্রামে জমি কিনে বাড়ি করে দিয়েছেন। পাঁচ বছর ধরে কমলা বেগমের মেয়ে ও জামাতা হলহলিয়া গ্রামে বসবাস করছেন। সংসারে প্রায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতো। কমলা বেগম তার মেয়ের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে প্রতি মাসে টাকা দেন। সপ্তাহখানেক আগেও কমলা বেগম তার মেয়ের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠান। রুবেল তার স্ত্রী কাছে টাকা চেয়ে পাননি। এ বিষয় নিয়েই সোমবার স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে রুবেল হোসেন স্ত্রী মৌ আক্তারকে ছুরিকাঘাত করেন। তার চিৎকার শুনে খালা আলেয়া বেগম ছুটে এলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে পালানোর চেষ্টা করেন। তখন আলেয়ার ছেলে নীরব হোসেন ছুটে এলে তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান রুবেল।

স্থানীয়রা তিনজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলেয়া বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। মৌ আক্তারকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান। নীরব হোসেনকে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা