× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

ট্যাপেন্টাডলে ঝুঁকছে ইয়াবা সেবনকারীরা

প্রবা প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ২০:১০ পিএম

৪২ হাজার ২০০ পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ তাদের গ্রেপ্তার ৫ জন। প্রবা ফটো

৪২ হাজার ২০০ পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ তাদের গ্রেপ্তার ৫ জন। প্রবা ফটো

দীর্ঘদিন ধরে দেশে ইয়াবার একক ‘অধিপত্য’ থাকলেও গত কয়েকবছরে নিত্য নতুন মাদকের আবির্ভাব হয়েছে। মূলত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজর ফাঁকি দিতে নতুন মাদকের দিকে ঝুঁকছে সেবনকারীরা। তার অংশ হিসেবে ট্যাপেন্টাডল নামের ভারতীয় একটি ট্যাবলেটের দিকে ঝুঁকছে তারা। ‘খ’ শ্রেণির নিষিদ্ধ এই ট্যাবলেট ভারত থেকে অবৈধভাবে এনে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে সারা দেশে। মাদকসেবীরাও ইয়াবার বিকল্প হিসেবে লুফে নিচ্ছে এটি। ব্যাথানাশক ওষুধ হওয়ায় পরিবহনে সুবিধা ও দাম ইয়াবার তুলনায় কিছুটা কম হওয়ায় ক্রমেই বাড়ছে এটির চাহিদা।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (ডিএনসি) একটি সূত্র বলছে, ইতিমধ্যে রাজধানীর মিরপুরসহ দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় ট্যাপেন্টাডল সেবনকারী চক্র গড়ে উঠেছে। তাদের আইনের আওতায় আনতে গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটের প্রতি পাতার ভারতীয় দাম ২৫০ রুপি। এগুলো অবৈধভাবে দেশে এনে প্রতি পিস ১৫০-২০০ টাকায় বিক্রি করা হয়ে থাকে।

এদিকে ট্যাপেন্টাডলের সবচেয়ে বড় চালানসহ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএনসির ঢাকা মেট্রো (উত্তর)। তারা হলেন- চক্রের হোতা সোলাইমান, হৃদয় ইসলাম রাজু, এ কে এম আবু সাইদ, আশীক সাইফ ও মো. ফারুক। গত বুধবার মধ্যরাতে রাতে ৪২ হাজার ২০০ পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিএনসি বলছে, এ চক্রের সদস্যরা সড়কপথে বৈধভাবেই ইমিগ্রেশন পার হয়ে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে যেত। এরপর সেখান থেকে বিমানে করে বিপুল পরিমাণ ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট নিয়ে দেশে ফিরত। বিমানবন্দরে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সদস্যরা যারা তাদের ক্ষেত্রে কিছুটা বিনয়ী থাকে এজন্য একজনকে রোগী সাজিয়ে আনতো। এভাবে প্রতি মাসে চক্রের সদস্যরা অন্তত চার-পাঁচবার ভারতে যাতায়াত করত। 

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় ডিএনসির ঢাকা মেট্রো (উত্তর) কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক মজিবুর রহমান পাটওয়ারী বলেন, গত আগস্ট মাসে এ চক্রের একজন সদস্যকে ফেনসিডিলসহ বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে ভারত থেকে ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট ও ফেন্সিডিল এনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরবারহ করছে। পরে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে বিমানবন্দরের গ্রীন চ্যানেল এলাকা থেকে এই চক্রের মূলহোতাসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মজিবুর রহমান পাটওয়ারী আরো বলেন, চক্রটি বিভাবে এই ট্যাবলেট বিক্রি করতো, এদের ক্রেতা কারা, কত দামে বিক্রি করা হত, এসব বিষয়ে পরবর্তীতে রিমান্ডের জিজ্ঞাসাবাদে বেড়িয়ে আসবে।

ডিএনসির ঢাকা মেট্রো (উত্তর) কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, চক্রের হোতা সোলাইমান প্রতি মাসে ৪ থেকে ৫ বার কলকাতায় যাতায়াত করত। এরপর বিভিন্ন পণ্যের আড়ালে ট্যাপেন্টাডলসহ অন্যান্য অবৈধ মাদক দেশে নিয়ে আসত। এ কাজে সে তার একাধিক সহযোগীকে ব্যবহার করত। কখনো অন্য যাত্রীদের বিমানের টিকিট কেটে দিয়ে ও নগদ কিছু টাকা উপহার হিসেবে দিয়ে এই ট্যাবলেট বিমানবন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশ করাত।

অভিযানের নেতৃত্ব দেওয়া ঢাকা মেট্রো (উত্তর) কার্যালয়ের মো. সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান বলেন, এই চক্রটি শুধু ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটই নয়, বিভিন্ন নামিদামি টিকাও নিয়ে আসতো বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। এ ধরনের আর কোনো চক্র নিষিদ্ধ এই ট্যাবলেট ছড়িয়ে দিচ্ছে কিনা কিনা সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান ডিএনসি কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা